Suicide বা আত্মহত্যা চিরকাল এক ব্যাধির মতো মানুষের জীবনকে তছনছ করেছে।জানুন, কেন মানুষ আত্মহত্যার মতো মারাত্বক সিদ্ধান্ত নিতে বাধ্য হয় কারন ,আপনার জীবনেও এরকম পরিস্থিতি আসতে পারে।

Spread the love

সোজা কথায় হতাসা(depression)  বা  না পাওয়া বা যা আমি সবথেকে  বেশি চাই , যা আমার কাছে সবথেকে প্রিয় তা যদি আমি না পাই …. দিনের পর দিন… এই না পাওয়াই  এক জন মানুষকে এতটাই হতাস করে তোলে যে সে SUICIDE করে ফেলে……এ অবস্থায় একমাত্র ভালো psychiatric বা মানসিক ডাক্তার তাকে ঠিক করে তুলতে পারে Deep Depression চলে যাওয়া একজন মানুষকে একজন ডাক্তরই ঠিক করতে পারে…সাধারন মানুষ তাকে বোঝাতে গেলে উলটো ফল হতে পারে। সে ভাবতে পারে তার problem কে ছোট করে দেখা হচ্ছে…সে আরও বেশি Depression এ চলে যেতে পারে।

Suicide করার কিছু কারন এখানে আলোচনা করা হল..………

                                একাকীত্ত   

একা হয়ে যাওয়া …. অর্থাৎ চারিদিকে যারা আছে তাদের সঙ্গে মিশে আমি ঠিক শান্তি পাই নি ….কেউ আমার মনের মানুষ না …. কারো সঙ্গে  আমার MIND MATCH করে না … আমাকে কেউ ঠিক বোঝে … আমি ঠিক কি চাই তা ঠিক লোককে বোঝাতে পারি না … আসে পাশে যরা আছে তাদের আচার আচারন …. আমার ভালো লাগে না।তাদের যা  attitude তা না আমার পছন্দ নয় … আমি যা ভাবি তা কাউকে শেয়ার করর এরকম  কেউ নেই।আমার  ভাবনার কথা বললে কেউ  ঠিক মত response করে না ।আমী একা…। একা…… আমর কেউ কেউ নেই…বিদায় পৃথিবী…।

তোমার প্রিয় মানুষ যাকে তুমি তোমার নিস্বাস প্রশ্বাসের এর মত ভালোবাসো, কিন্তু সে তোমাকে পছন্দ করে না।তুমি তার দিকে চাতক পাখির মতো চেয়ে থাকো কিন্তু তার কাছে তোমার এই চাওয়ার কোন দামই নেই।তুমি হাবে ভাবে তাকে তোমার মনের কথা বোঝতে চাইছ কিন্তু সে যেন তা বুঝেও বুঝতে চাইছে না। যে করে হোক তোমায় avoid করে যাচ্ছে।

তুমি ভাবছ কালকেই তুমি তোমার মনের কথা তাকে বলে দেবে কিন্তু  পারছোনা এই ভয়ে যে সে যদি না বলে দেয়অথবা তুমি একদিন তাকে বলেই দিলে তোমার মনের কথা…কিন্তু সে তোমায়  অপমান করলো  অথবা তুমি জানতে পারলে তার জীবনে অন্য কেউ আছে, এরকম  আঘাত আনেক মানুষই নিতে পারে না।

এসময়  তার পারিবার ,বাবা,মা সবকিছুই তার কাছে মুল্যহিন হয়ে পড়ে।সব স্বপ্ন ঝাপসা হয়ে যায়…হতাসার  অন্ধকারে ডুবতে ডুবতে …সে একদিন পৃথিবী ছেড়ে চলে যায়।

Carrier Expectation পুরণ না হওয়ায় বহু মানুষ  suicide করে ।

 আমি যা হতে চাইছিলাম তা হতে পারলাম না , যে কোন কারনে  হোক না কেন ….আমার কিছু ভুল সিধান্ত  আমার এই   জন্য দায়ী,  কেউ বা কারা কারা চক্রান্ত করে কারে আমার Carrier শেষ করে দিচ্ছে,  আমি বুঝতে পারছি কিন্তু কিছুই করতে পারছি না, আমায় সাহায্য করার মত কেউ নেই… 

এ বিষয়ে আমার যোগ্যতা  নেই অথছ এই profession আমার সব থেকে প্রিয় এ কাজ ছাড়া আমি আর কিছু করতে পারবনা , এটাই আমার প্রান,  এখন কি করবো? ও ভাগবান এখন আমি কি করবো?সবাই আমাকে নিয়ে হাসা হাসি করে, এভাবে বেঁচে  থাকার কি মানে?

                                                      

চারিদিকে প্রাচুর্য, সবার হাতে প্রচুর অর্থ, প্রিয়জনের অর্থ নিয়ে ব্যঙ্গ,  প্রিয় দ্রব্য না কিনতে পাবার আফসোস, যত দিন যাচ্ছে আমার আর্থিক অবস্থা খারাপ হয়ে যাচ্ছে, ও Iphone, বাড়ি, গাড়ি সব করে ফেলল, আমি কিছুই পারলাম না । অথচ আমি অনেক বেশি স্মার্ট ছিলাম পড়াশোনাতেও ওর থেকে ভালো ছিলাম।  হায়!  তবু কেন ওদের থেকে পিছিয়ে পড়লাম।

আর্থিক অবস্থা খারাপ এর জন্য আমার প্রিয় মানুষ আমায় ছেড়ে চলে গেল। বাড়িতে আমার  অকর্মণ্যতাকে নিয়ে  সবাই নিয়ে ব্যঙ্গ করে।আমি হতাশ কোন উপায় দেখছি না মৃত্যুই এখন শেষ পথ।

আমার ব্যবসা আস্তে আস্তে খারাপ হয়ে পড়ছে, আমি অনেক চেষ্টা করছি কিন্তু কিছুই হচ্ছে না, আমার ধার ক্রমস বেড়ে যাচ্ছে……আমি কি করব……হায় ভাগবান আমার কি হবে……কি করে আমি সাংসারের এতো প্রয়োজান  মিটাব, কেউ আমার পাশে নেই…কেউ আমার অবস্থাটা বুঝছে না…আমি একা……।।আমি শেষ…তাহলে পালাতে হবে……এ দুর্দিনে কেউ যখন আমার পাশে নেই,তাহলে বিদায়……বিদায় পৃথিবী।

আপনার প্রিয় মানুষ ,সে আপনার Wife,Husband  বা বাবা-মা, সন্তান যে কেউ হতে পারে। প্রিয় মানুষের অবহেলা কাউকে আত্মহত্যার দিকে ঠেলে দিতে পারে।

ধরা যাক আপনার স্বামী আপনাকে খুব ভালোবাসে। হঠাৎ আপনি খেয়াল করলেন সে আর আপনার ব্যাপারে ততটা ইন্টারেস্টেড নয়। সব ব্যাপারে  সে কি রকম যেন বিরক্ত। আপনাকে যেনো সব ব্যাপারে ignore করছে।  

সে ফিজিক্যালি ও আপনার ব্যাপারে ইন্টারেস্টেড নয়। সবকিছু তেই সে বিরক্ত…অথচ   আপনি বিবাহিত, তাকে Divorce দেবেন সে কথা সে চিন্তাও করতে পারেন না, আপনার পাশে কেউ নেই…তাকে ভিত্তি করেই আপনার জীবন চলছে … ,সামাজিক…সব ব্যাপারে সেই আপনার কাণ্ডারি…।সেই আজ পর হয়ে গেছে… 

এতো বড়ো পৃথিবী তে আপনি একা……তাহলে বিকল্প কি…নিজেকে শেষ করে তাকে চিরদিনের মত মুক্তি দেওয়া……  ??? এই ভাবনাই অনেক মানুষের আত্মহত্যার কারন।

 কোন কঠিন অসুখ যার থেকে পরিত্রান পাওয়ার আশা শেষ ” আর কোনদিন আমি এর থেকে মুক্তি পাবো না” এই  অসহায়তা, যন্ত্রণা,অন্য মানুশের অনুকম্পা,তার প্রাতি মানুষের বিরক্তি, তার জন্য অন্যের জীবনের সময় নষ্ট হয়ে যাচ্ছে,…দৈহিক যন্ত্রনা,অসহতা, অবহেলা …ক্রমস তাকে চরম হতাস করে দেয়… কোন একদিন , এসব  কারনে অনেকেই  শেষ পথ বেছে নেন।

ঘুম না হওয়া suicide এর অন্যতম কারন হিসাবে বিবেচিত হয়। বহু মানুষ আছেন যারা আনেক দিন ধরে ঘুম হয় না বলে suicide করে ফেলেন।এটা খুবই common problem এবং খুব সহজেই  কোন মনোরোগ বিশেষজ্ঞ এ সমস্যার সমাধান করতে পারেন।

এছাড়া  আরও বহু কারন আছে যা মানুষকে  গভির হাতাসায় ডুবিয়ে দেয় এবং সে অবশেষে আত্মহত্যার পথ বেছে নেয়।

*post টি ভালো লাগলে অবস্যই share করুন, আপনার কিছু বলার থাকলে তা comment  এ অবশ্যই  লিখুন। Bell Icon অবশ্যই click করতে এ করতে ভুলে যাবেন না।

*উপরের   লেখা টি  ব্যক্তিগত মতামত। …… আলোচনা  বা অভিমত, প্রামান্য সত্য নয়।  

Similar Posts

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *